এক দশক পূর্বেও উপজেলার সাথে যোগাযোগ ছয় কিলমিটারের পথ, শুষ্ক মৌসুমে পায়ে হেটে এবং বর্ষা মৌসুমে নৌকা ছাড়া বিকল্প ছিল না। কোন মানুষ হটাৎ অসুস্থ হলে বাঁশের মাচায় করে কাঁধে নিয়ে রোগীকে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিতে হতো। হুলহুলিয়া তথা পাশ্ববর্তী গ্রামের জনগনের জন্য কোন প্রকার প্রাথমিক চিকিৎসার পর্যাপ্ত ব্যাবস্থা ছিল না। এ প্রতিকুল অবস্থার মোকাবিলা করতে তৎকালীন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মরহুম মহসীন আলী সরকার, ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মরহুম মুনসুর আলী খলিফা এর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় এবং গ্রামবাসীর অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে ১৯৫৬ সালে গড়ে তোলা হয় একটি দাতব্য চিকিৎসালয়। এ চিকিৎসাকেন্দ্র থেকে এ গ্রাম ছারাও পাশ্ববর্তী সারদানগর, পাঁড়েড়া, মুষ্টিগড়, স্থাপন্দিঘী, গোয়ালবাড়ীয়ার জনগন চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেন। বর্তমানে একজন মেডিক্যাল অফিসার(এম.বি.বি.এস), একজন প্যারামেডিক্‌স ও একজন ফার্মাসিস্ট এর মাধ্যমে এ দাতব্য চিকিৎসালয়টি থেকে সেবা প্রদান করা হছে।